মিমের অসুস্থতায় ববির ব্ল্যাকমেইল

মিমের অসুস্থতায় ববির ব্ল্যাকমেইল

মিমের অসুস্থতায় ববির ব্ল্যাকমেইল

মিমের অসুস্থতায় ববির ব্ল্যাকমেইল

‘ব্ল্যাকমেইল’ ছবিতে অভিনয়ের কথা ছিল মিমের। কিন্তু হঠাত্ অসুস্থ হয়ে পড়ায় ছবিটিতে অভিনয় করতে পারেননি মিম। আর মিমের অসুস্থতার কারণে ছবিটিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন বর্তমান সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী ববি। তিনি এরই মধ্যে ছবিটির শুটিংয়ে অংশও নিয়েছেন।
মিম বলেন, ‘ব্ল্যাকমেইল ছবিতে আমার অভিনয়ের কথা ছিল। কিন্তু হঠাত্ অসুস্থ হয়ে পড়ায় কাজটি আর করতে পারিনি। পরিচালকের কাছ থেকে জানতে পারি, তিনি ববিকে কাস্ট করেছেন। ববি এ সময়ের একজন ভালো অভিনয়শিল্পী। আশা করছি, তাঁর অবস্থান থেকে তিনি ভালো কিছু করতে পারবেন।’
শুরুতে জানা গিয়েছিল ‘ব্ল্যাকমেইল’ ছবিটির পরিচালক অনন্য মামুন। কিন্তু শুটিং শুরুর দিন থেকে ছবিটি পরিচালনা করেন চন্দন চৌধুরী। প্রতারণার অভিযোগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি অনন্য মামুনের সদস্যপদ বাতিল করায় ‘ব্ল্যাকমেইল’ ছবির শুটিংয়ের সময় নিজের নামটি গোপন রাখেন তিনি। কিন্তু কয়েকদিন শুটিংয়ের পর ফেসবুকে পোস্ট করা ছবির একটি পোস্টারে পরিচালক হিসেবে নিজের নামটি ব্যবহার করেন মামুন। এখানে আরেকটি কথা বলে রাখা ভালো, শুরুর দিকে ‘ব্ল্যাকমেইল’ ছবিটির নাম ছিল ‘ফ্রেন্ডশিপ’। ছবির অভিনয়শিল্পী এবং পরিচালকও তেমনটি বলেছিলেন। কিন্তু পরে হঠাত্ করেই কোনো ধরনের ঘোষণা ছাড়াই ‘ফ্রেন্ডশিপ’ ছবিটিকে ‘ব্ল্যাকমেইল’ নামে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন অনন্য মামুন।
উল্লেখ্য, গত জুন মাসে প্রথম আলোকে অনন্য মামুন বলেছিলেন ‘আমার তো একটা ঝামেলা আছে। পরিচালক সমিতি সম্প্রতি আমার সদস্যপদ বাতিল করেছে। এই মুহূর্তে তাই নিজের নামে ছবির শুটিং করতে পারছি না। আর সে জন্যই ছবির শুটিংয়ের ক্ষেত্রে অন্য উপায় অবলম্বন করতে হচ্ছে। নতুন ছবি “ফ্রেন্ডশিপ”-এর শুটিং পরিচালক চন্দন চৌধুরীর নামে শুরু করছি। শুটিং চলাকালীন পরিচালক সমিতির সঙ্গে আমার ঝামেলা মিটে গেলে তখন নিজের নামে ছবিটি করে নেব।

No Comments